ঐক্যের আহ্বান কুষ্টিয়া সাংবাদিক ফোরামের

ঐক্যের আহ্বান কুষ্টিয়া সাংবাদিক ফোরামের

গণমাধ্যম
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ঐক্যের আহ্বান কুষ্টিয়া সাংবাদিক ফোরামের

সাংবাদিকতার ঐতিহ্য ও মর্যাদার সুরক্ষায় ঐক্যের আহ্বান জানিয়েছে কুষ্টিয়া সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা। সোমবার (১৫ মার্চ) সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানান সংগঠনটির সভাপতি রেজোয়ানুল হক ও সাধারণ সম্পাদক আদিত্য শাহীন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কুষ্টিয়া সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছে যে, কুষ্টিয়ার স্থানীয় সাংবাদিকদের মধ্যে বিভেদকে কেন্দ্র করে নানারকম অপেশাদারমূলক ও অপ্রীতিকর ঘটনায় জেলার সাংবাদিকতার সুদীর্ঘকালের ঐতিহ্য ভূলুন্ঠিত হচ্ছে।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবে ফোরামের দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে কুষ্টিয়ার একাধিক সংসদ সদস্য স্থানীয় সাংবাদিকদের মধ্যে বিভেদের বিষয়টি উল্লেখ করে তাদের অস্বস্তির কথা জানান। এর কয়েকদিনের মধ্যেই কুষ্টিয়ায় সাংবাদিকদের বিভেদ ফের প্রকাশ্যে এসেছে। এলাকার সন্তান হিসেবে এতে আমরা মর্মাহত। সম্প্রতি সংগঠনের কার্যনির্বাহী পরিষদের এক বৈঠকে এ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়।

উপমহাদেশে সংবাদপত্রের সূচনার অগ্রদূতদের একজন কাঙাল হরিনাথও এই এলাকার সন্তান। মুদ্রণশিল্পের সূচনাকালের অন্যতম ছাপাখানা এম এন প্রেসও এই এলাকায়। সে সূত্রে সংবাদপত্র ও সাংবাদিকতা কুষ্টিয়ার অন্যতম প্রধান ঐতিহ্য এবং তা এখানকার সাংবাদিকদের যুগ-যুগান্তরের একাগ্রতা, সৃজনশীলতা ও পরিশ্রমের ফসল। সাংবাদিকদের মধ্যে চলমান চরম বিভেদ এবং তা নিয়ে অঘটন দীর্ঘ দিনের এই অর্জনের ওপর চরম আঘাত।

কুষ্টিয়ার সাংবাদিকদের এই বহুধাবিভক্তি নিয়ে নানা মহলে সমালোচনা রয়েছে। এতে এই পেশা শুধু নয়, দেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী হিসেবে খ্যাত এই জনপদের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। সাংবাদিকতা এখন নানা কারনেই প্রশ্নের মুখে। নিজেদের মধ্যে দলাদলি, বিভেদ, সংঘাত চলতে থাকলে আমরা মানুষের আস্থা আরও হারাব।

সাংবাদিকতার মতো মহান পেশা ও জন্মস্থানের ভাবমূর্তির স্বার্থে সব বিভেদ ভুলে কুষ্টিয়ার সাংবাদিকদের ঐক্যের আহ্বান জানাই। আমরা বিশ্বাস করি, খোলা মন নিয়ে আলোচনায় বসলে অস্বস্তিকর এই পরিস্থিতি বদলানো সম্ভব। আশা করছি, কুষ্টিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ চিন্তা, মনন ও ভ্রাতৃত্ববোধ দিয়ে তাদের স্বকীয় মর্যাদা পুনঃপ্রতিষ্ঠায় আন্তরিকতার সঙ্গে এগিয়ে আসবেন।