করোনা থেকে মুক্তি পেতে গোমূত্র

করোন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

 

ডেস্ক।। ভারতে মোট ১১৯ জন মারণ চিনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। কীভাবে করোনা সংক্রমণ রোখা সম্ভব, তা নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। সন্দিহান বিশেষজ্ঞরাও। এই পরিস্থিতিতে গোমূত্রকেই পথ্য হিসাবে বেছে নিলেন উত্তর কলকাতার বিজেপি নেতারা।
সোমবার জোড়াসাঁকোয় গোপুজো করে গোমূত্র পান করালেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা। যদিও এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন মহলে চলছে জোর আলোচনা। উত্তর কলকাতায় গোমাতার পুজোর আয়োজক বিজেপি নেতাদের দাবি, “এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাস রোখার মতো কোনও ওষুধ পাওয়া যায়নি।

 

 

বর্তমান পরিস্থিতিতে এই মারণ চিনা ভাইরাসকে একমাত্র রুখতে পারে গোমূত্রই। তাই গোমাতার পুজো করে আমরা সকলে গোমূত্র পান করছি। সবাইকে দিচ্ছি পান করতে।” বিজেপি নেতাদের এই দাবি ঘিরে বিভিন্ন মহলে হইচই পড়ে গিয়েছে। বেশিরভাগ মানুষ ‘কুসংস্কার’ বলে এই ঘটনাকে আখ্যা দিয়েছেন। বিজেপির এই গোমূত্র পানের বিরোধিতা করেছেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি পালটা বলেন, “ভারত প্রযুক্তি বিদ্যায় বিশ্বসেরা। সেই ভারতের মাটিতে দাঁড়িয়ে গোমূত্র পান করিয়ে অবৈজ্ঞানিক বিষয়ের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে বিজেপি। আমার বিশ্বাস সাধারণ মানুষ কোনওভাবেই বিভ্রান্ত হবেন না। তাঁরা জানেন চিকিৎসা ছাড়া গোমূত্রের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসকে ঠেকানো সম্ভব হবে না।”

 

 

চিকিৎসকরা যদিও গোমূত্র পান করানোর বিষয়টিকে মোটেও ভাল চোখে দেখছেন না। তাঁদের দাবি, গোমূত্র পান করে কোনওভাবেই করোনা ভাইরাস রোখা সম্ভব নয়। বরং যিনি খাচ্ছেন তাঁর হিতে বিপরীত হতে পারে। কঠিন কোনও রোগ শরীরে বাসা বাঁধাও অবিশ্বাস্য কিছুই নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.