কলকাতার সবচেয়ে বড় স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়ি যশোরে

কলকাতার সবচেয়ে বড় স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়ি যশোরে

কলাম ও ফিচার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
কলকাতার সবচেয়ে বড় স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়ি যশোরে

সাজেদ রহমান, সিনিয়র সাংবাদিক।।  কলকাতার সবচেয়ে বড় স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়ি যশোরে। চৌগাছার যাত্রাপুরের বিশ্বেশ্বর সরকারের দুই পুত্র হাজারী লাল ও মন্মথ ভূষণ ১৯০৫ খ্রিষ্টাব্দে কলকাতার ১৬০ নং বৌ বাজার ষ্ট্রিটে ‘বি সরকার এন্ড সন্স’ নামের স্বর্ণ অলংকার প্রতিষ্ঠান খোলেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম রাখেন পিতার নামে। তাদের অলংকারে ‘বিএস’ মার্কা গ্যারান্টি ছাপ দেয়া থাকে। ১৯১৫ খ্রিষ্টাব্দে গিনি হাউজ উঠে এল ১৩১, বৌবাজার ষ্ট্রিটের নতুন শো’রুমে। ওই সময় মন্মথ ভূষণের বড় ছেলে গোষ্ঠবিহারী বিলেতে গেলেন সোনার কারিগরিবিদ্যা শিখতে।
তিনি সেখান থেকে ফিরে আসার পর পরিবারের অংশীদারদের সাথে মতপার্থক্য হলে ১৯৩৩ খ্রিষ্টাব্দে নতুন দোকান দেন ১২৪ এবং ১২৪/১ বৌ বাজার ষ্ট্রিট। দোকানের নাম হল এম.বি. সরকার এন্ড সন্স (সন এন্ড গ্রান্ড সন্স অব লেট বি সরকার)। ওই বছরই মারা যান মন্মথভূষণ। দোকানের দায়িত্ব পড়ল তার তিন সাবালক পুত্র গোষ্ঠবিহারী, কৃষ্ণগোপাল ও পুলিনবিহারীর ওপর। বাকী তিনপুত্র লক্ষীকান্ত, ব্রজেশ্বর এবং রাজেশ্বর (এক বছর) তখন নাবালক।
ব্যবসায় উন্নতি হওয়ায় ১৯৫৩ খ্রিষ্টাব্দে তারা বৌবাজার আমহার্ষ্ট মোড়ে নতুন শো’ রুম দিলেন। পরিবারে ভাইদের মধ্যে বিরোধে এক ভাই রাজেশ্বর ১৯৫৭ খ্রিষ্টাব্দে নতুন দোকান দিলেন ১৭১/১ রাসবিহারী এভিনিউতে। দোকানের নাম ‘এ সরকার এন্ড সন্স’। নিত্য নতুন ডিজাইনি এবং খাঁটি সোনা ছিল তাদের ব্যবসার মুলনীতি।
সারা বাংলায় নাম ছড়িয়ে পড়েছিল তাদের দোকানের। শিল্পী যামিনী রায়, রাধারাণী দেবী, আশাপূর্ণা দেবী, প্রতিভা বসু, রণেন আয়ন দত্ত, অমলাশঙ্কর প্রমুখ গুণীজন গৃহে স্থান পেল এঁদের অলংকার। এখনও সমান তালে কলকাতায় ব্যবসা করছে তাদের পরিবারের স্বর্ণের দোকান।
চৌগাছার যাত্রাপুরে এখন বিশ্বেশ্বর সরকারের বাড়িতে অন্য লোক বসবাস করেন। শানবাঁধানো বড় পুকুরটি এখনও আছে, তবে তা ছোট হয়ে গেছে। ভিজিট করুন

1 thought on “কলকাতার সবচেয়ে বড় স্বর্ণ ব্যবসায়ীর বাড়ি যশোরে

Comments are closed.