কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাঙচুর

কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাঙচুর

দেশের খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাঙচুর

কেশবপুরে পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাবেক এক কাউন্সিলরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে প্রায় অর্ধলাখ টাকার ক্ষতিসাধন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল হালিম বাদি হয়ে ওই ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মফিজুর রহমান খানসহ ৫ জনকে অভিযুক্ত করে উপজেলা রিটার্নির অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ কেশবপুর থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অভিযোগে বলা হয়েছে, কেশবপুর পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল হালিম আসন্ন ২৮ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ওই ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মফিজুর রহমানকে আবারও আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

গত ১০ ফেব্রুয়ারী রাত ৯টার দিকে বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল হালিম শহরের বকুলতলা বাজারে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে কর্মী, সমর্থকদের নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এ সময় কাউন্সিলর মফিজুর রহমানের নের্তৃত্বে ৭/৮ জন যুবক আতর্কিতভাবে কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল হালিমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে তাকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর হুমকি দেয়।

এক পর্যায়ে তারা কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল হালিমসহ তার কর্মী সমর্থকদের ওপর হামলা চালিয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুর করে পায় অর্ধলাখ টাকার ক্ষতি সাধন করা হয়। হামলায় কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল হালিমসহ শাহাজান বাবু ও জনি আহত হন।

এ ব্যাপারে বর্তমান কাউন্সিলর মফিজুর রহমান বলেন, আমার নের্তৃত্বে কোন হামলার ঘটনা ঘটেনি। কেবা কারা তার ওপর হামলা করেছে তাও আমি জানি না। কেশবপুর থানার ওসি মো: জসিম উদ্দীন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ভিজিট করুন

যারা টিকার সমালোচনা করছে, তাদের কথায় গুরুত্ব দেওয়ার কিছু নেই: প্রধানমন্ত্রী