কেশবপুরে অন্যের জমি দখল করে পাকা বসত ঘর নির্মাণের অভিযোগ

কেশবপুরে অন্যের জমি দখল করে পাকা বসত ঘর নির্মাণের অভিযোগ

দেশের খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কেশবপুরে অন্যের জমি দখল করে পাকা বসত ঘর নির্মাণের অভিযোগ

কেশবপুর প্রতিনিধি: কেশবপুরে অন্যের জমি দখল করে পাকা বসতঘর নির্মাণ করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার মূলগ্রাম এলাকার সিরাজুল ইসলাম জোর করে প্রতিবেশী মৃত হাচেন সরদারের ছেলে জালাল সরদার, আব্দুল মান্নান এবং মেয়ে রাশিদা বেগমের ওয়ারিশ সূত্রে পাওয়া খতিয়ান নম্বর-২২৯৫ ও জে এল নম্বর-২৬ প্রায় ৩ শতক জমির উপর দীর্ঘদিন ধরে পাঁকা ঘর নির্মাণের কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন।

ওই জমির উপর ঘর তৈরি করার কার্যক্রম শুরু হলে দফায় দফায় সিরাজুল ইসলামের সাথে জমির মালিকরা এ বিষয়ে কথা বললেও তিনি সকল বাধা উপেক্ষা করে নির্মান কাজ চালিয়ে গেছেন।

সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আলা, মহিলা ইউপি সদস্য রেহেনা ফিরোজ, ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নিমাই চন্দ্র দাসের উপস্থিতিতে এ বিষয় নিয়ে গ্রামবাসীকে সাথে নিয়ে দু’পক্ষের সাথে আলোচনা করেও কোন সুরহা হয়নি।

জমির মালিক রাশিদা বেগমের ছেলে রফিকুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক কবরস্থানসহ তাদের প্রায় ৩ শতক জমির উপর তৈরি করা পাকা ঘরটি অপসারণ করার জন্য বৈঠক করলেও প্রভাবশালী সিরাজুল ইসলাম মানতে নারাজ।

অন্যের জমির উপর ছাদের ঘর তৈরির বিষয়ে সিরাজুল ইসলামের সাথে কথা হলে জানায়, হান্নান সরদারের কাছ থেকে ঘর করার জন্য জমি কিনেছিলেন। পরবর্তীতে তারা তাদের মাঠের জমি রেজিস্ট্রি করে দেয়। এর মধ্যে তাকে ওই স্থানে ঘর করার অনুমতি দিলেও এখন বাধা দিচ্ছে।

সালিশি বৈঠকের মাধ্যমে দু’পক্ষকে ডাকা হলেও সমাধান করা সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আলা বলেন, ছাদের পাঁকা ঘর যেহেতু তৈরি হয়ে গেছে সেক্ষেত্রে তিনি বিষয়টি সমাধান করার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন।