কেশবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় এক ব্যক্তির মৃত্যু

কেশবপুরে রাসবিহারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিরুদ্ধে গুরুত্বপূণ কাগজপত্র লুকিয়ে রাখার অভিযোগ

শিক্ষা
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কেশবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় এক ব্যক্তির মৃত্যু

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি:
কেশবপুরে বিদ্যানন্দকাটি রাসবিহারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান খানের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের গুরুত্ব পূর্ণ রেজুলেশন খাতা,ক্যাশ খাতা, ও শিক্ষক নিয়োগের মূল কাগজপত্র লুকিয়ে রেখে মিথ্যা সাধারণ ডায়েরী করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর পক্ষে সরফাবাদ গ্রামের আকবার হোসেন বাদি হয়ে ৫ জনের গণ স্বাক্ষরের গত ২৩ আগস্ট ২০২০ তারিখে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে উপজেলার বিদ্যানন্দকাটি রাসবিহারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান খান বিদ্যালয়ের গুরুত্ব পূর্ণ রেজুলেশন খাতা,ক্যাশ খাতা, ও শিক্ষক নিয়োগের মূল কাগজপত্র লুকিয়ে রাখে। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিসহ সদস্যদের সহযোগিতায় তিনি অবসর গ্রহন করে। যার কারণে বিদ্যালয়ের গুরুত্ব পূর্ণ কাগজপত্র নষ্ট হতে চলেছে।ভবিষ্যতে বিদ্যালয়ের বহু ক্ষতির সম্মুখিন হবে।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য রফিকুল ইসলাম,সাবেক সহ সভাপতি মিজানুর রহমান,আজীবনদাতা সদস্য নুরু ইসলাম, অভিভাবক আবুল কালাম,আবু সাঈদ সাংবাদিকদের জানান,অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান খান বিদ্যালয়ের গুরুত্ব পূর্ণ রেজুলেশন খাতা,ক্যাশ খাতা, ও শিক্ষক নিয়োগের মূল কাগজপত্র নিজে লুকিয়ে রেখে মিথ্যা সাধারণ ডায়েরী করেছে।যার নং ৯৯৯তারিখে ২৫/৩/২০। যার ফলে বিদ্যালয়ের সকল কার্যাত্রুম বন্ধ হয়ে পড়েছে।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নাছির উদ্দীন বলেন, গুরুত্ব পূর্ণ রেজুলেশন খাতা,ক্যাশ খাতা, ও শিক্ষক নিয়োগের মূল কাগজপত্র গুলো উদ্ধার এর জন্য ম্যানেজিং কমিটিদের সাথে লুৎফর রহমান খানকে নিয়ে একাধিক বার আলোচনা করা হলেও অবসর প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান খান সে সবগুলো ফেরত দিতে ব্যর্থ হয়েছেন।যার কারণে কমিটির পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান খান বলেন, আমি বিদ্যালয়ের কোন কাগজপত্র লুকিয়ে রাখিনি। গুরুত্ব পূর্ণ রেজুলেশন খাতা,ক্যাশ খাতা, ও শিক্ষক নিয়োগের মূল কাগজপত্র হারিয়ে যাওয়ার কারণে একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান বলেন,অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.