কেশবপুরে সুপারি দাম বৃদ্ধি পেয়েছে

দেশের খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
আজিজুর রহমান।। কেশবপুরে সুপারি দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। সুপারি ফসলগুলোর মধ্যে অন্যতম।প্রাচীনকাল থেকেই এদেশের মানুষ পানের সাথে অপপরহার্য উপাদন হিসেবে সুপারি ব্যবহার করে আসছে। অল্প খরছে বেঁশি আয়ের লক্ষে সুপারি চাষে আগ্রহ বেড়েছে বলে সুপারি চাষরা জানিয়েছেন। বর্তমানে গ্রীস্মমগুলীর সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকাতে কিছু পরিমান সুপারির চাষ হয়ে থাকে।
কৃষি গবেষণা কেন্দ্র থেকে এ পর্যন্ত দুটি উচ্চ ফলনশীল সুপারির জাত উদ্ভাবিত হয়েছে, যা বারি সুপারি ১ ও বারি সুপারি ২ হিসেবে পরিচিত। প্রতিবছরের তুলনাই সুপারির দাম ব্যাপক হারে বৃদ্ধিতে বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা।
শনিবার দুপুরে কেশবপুর সুপারি হাটে গিয়ে দেখা যায় ব্যাপক সুপারি বাজারে থাকলেও দাম কম নেই। দাম বেশি হওয়ায় খুচরা ও পাইকারি ব্যবসায়ীসহ চা দোকানিরা পড়েছে চরম বিপাকে। সুপারি ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম, তরিকুল ইসলাম রবি হোসেন ও খুচরা ব্যবসাযী আমিনুর রহমান, ফারুক হোসেন বলেন প্রতিবছরের তুলানায় এবার সুপারি খুচরা ও পাইকারি বাজার চলছে খুব চড়া, অতিরিক্ত দাম বৃদ্ধির কারণে ব্যবসা করাই অসম্ভব হয়ে উঠেছে। গত বছর যেখানে সুপারির বাজার ছিলো ১ কুড়ি মাত্র ১৮০ টাকা থেকে ২৫০ টাকা, কিন্ত এখনকার সময়ে সুপারি বাজার চলছে ১ কুড়ি ৭০০ টাকা থেকে ৭৫০ টাকা এত দাম দিয়ে সুপারি কিনে ব্যবসা করে লাভ হচ্ছে না।
পান ব্যবসায়ী আবুল কাশেম, কামরুল হোসেন, জয়দেব দাস, হরিপদ, মনিরুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, রবিন দেবনাথ, হাফিজুর রহমান সহ একাধিক ছোট বড় পান ব্যবসায়ীরা জানান,সুপরির দাম বৃদ্ধির কারণে খুব কম পান বিক্রি হচ্ছে। এর আগে প্রতিদিন ৩/৪ কুড়ি পান বিক্রি হতো আমাদের। বাজারে পানের দাম কম থাকলেও সুপারির দাম অনেক চড়া। বাজারে নতুন সুপারি আসার পর হয়তো দাম কম হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.