কলারোয়ার চার হত্যা থেকে বেঁচে যাওয়া শিশুকে দত্তক নিতে চান ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী

জাতীয় খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

চার হত্যা থেকে বেঁচে যাওয়া শিশুকে দত্তক নিতে চান ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী

কলারোয়া প্রতিনিধি ।। সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলায় একই পরিবারের চারজনকে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় ভাগ্যক্রমে বেঁচে যাওয়া ছয় মাসের শিশু মারিয়াকে দত্তক নিতে চান বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর সাবেক জিএস গোলাম রব্বানী।

রবিবার মধ্যরাতে তিনি মারিয়াকে দেখতে কলারোয়া উপজেলার খলসি গ্রামে ইউপি সদস্য নাসিমা খাতুনের বাড়িতে যান।
এসময় তিনি সেখানে বেশকিছু সময় অবস্থান করেন, শিশু মারিয়ার খোঁজখবর নেন এবং তার সাথে খেলায় মেতে ওঠেন।

তিনি অপেক্ষমান গণমাধ্যম কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি মারিয়াকে দত্তক নিতে চাই। মারিয়ার ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করাটা খুবই জরুরী। এজন্য তার একজন ভাল অভিভাবক দরকার। যিনি তাকে আদর্শবান করে গড়ে তুলবেন। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে মারিয়া ইউপি সদস্য নাসিমা খাতুনের কাছে আছে এবং ভাল রয়েছে। তিনি মারিয়াকে মায়ের মমতা দিয়ে আগলে রেখেছেন। তারপরও মারিয়াকে আইনগতভাবে দত্তক নিতে আমি ইচ্ছুক।

গোলাম রব্বানী বলেন, আমি মর্মান্তিক ঘটনাটির পরপরই মারিয়ার কথা শুনে ইউপি সদস্য নাসিমা খাতুনের সাথে যোগাযোগ করেছিলাম। সবসময় তার খোঁজখবরও রাখার চেষ্টা করি। এর আগে রবিবার বিকেলে সাতক্ষীরার তালা উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়নের হরিশচন্দ্রকাটি গ্রামে আত্মহননকারী ছাত্রলীগ নেতা বাবুর বাড়িতে যান গোলাম রব্বানী। এসময় তিনি শোকাহত পরিবারকে সান্তনা দেন এবং পরিবারটির পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

কলারোয়ায় একই পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা