দেশভাগের আগে যশোরে ‘যতীন্দ্র মোহন ক্লাব’ ছিল নামকরা

দেশভাগের আগে যশোরে ‘যতীন্দ্র মোহন ক্লাব’ ছিল নামকরা

খেলা কলাম ও ফিচার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সাজেদ রহমান, সিনিয়র সাংবাদিক।।  দেশভাগের আগে যশোরে যে কয়টি ক্লাব নাম করা ছিল তাদের মধ্যে একটি ছিল ‘যতীন্দ্র মোহন ক্লাব’। যার সংক্ষেপে নাম ছিল-‘জেএমসি ক্লাব’।

যতীন্দ্র মোহন ক্লাব প্রতিষ্ঠা হয়েছিল ১৯২৯ খ্রিষ্টাব্দে। ক্লাব ঘরটি ছিল শহরের চৌরাস্তা মোড়ে। প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন নন্দ ব্যারিষ্টার। যশোর মধুচক্র (নিরালা সিনেমা) সিনেমা হলের স্বত্ত্বাধিকারী।

ক্লাবের নিজস্ব মাঠ ছিল মণিহার সিনেমা হলের পশ্চিম পাশে এখন যেখানে বড় মসজিদ ওই এলাকায়। এক সময় ওই ক্লাবের খেলোয়াড় ছিলেন কেষ্ট দত্ত, খানা কেষ্ট, বিনয় বিশ্বাস, তারা দত্ত, আলমগীর সিদ্দিকী, আব্দুল জলিল, ডা: আজিজুর রহমান, সুকুমার, পুটু কুন্ডু, হরিদাস, পুষ্পেন সরকার প্রমুখ।

যতীন্দ্র ক্লাব ফুটবল ছাড়াও সাঁতার প্রতিযোগিতার আয়োজন করত। নন্দ বাবুর নিজ বাড়ির পুকুরে (নিরালা সিনেমা হলের পাশে) কলকাতার বিখ্যাত সাঁতারু প্রফুল্ল ঘোষ এবং ‘জেএমসি’র আব্দুল আজিজ সাঁতারে অংশ গ্রহণ করে।

১৯৪৫ খ্রিষ্টাব্দে সুলতানপুর শীল্ড টুর্ণামেন্টে আর্মি ইঞ্জিনিয়ারস কোর দলকে পরাজিত করে জেএমসি ক্লাব শীল্ড জিতে নেয়।
শিল্ডটি বহুদিন পর্যন্ত ক্লাব ঘরের দোতলার বারান্দায় রাস্তার ধারে রক্ষিত ছিল। ১৯৪৭ খ্রিষ্টাব্দের পর ‘জেএমসি’ বিলুপ্ত হয়ে যায়। ছবিটি ১৯৪৬ খ্রিষ্টাব্দে তোলা। ভিজিট করুন