নির্মানাধীন দোকান ঘর ভাংচুর

নির্মানাধীন দোকান ঘর ভাংচুর

জাতীয় খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কেশবপুরের সাতবাড়িয়া বাজারে নির্মানাধীন ৫টি দোকান ঘর ভাংচুর করা হয়েছে। রবিবার রাতে এলাকার সবুর শেখের জমির উপর নির্মানাধীন দোকান ঘর গুলো ভাংচুর করা হয়। সবুর শেখ সাতবাড়িয়া গ্রামে আব্দুল লতিফসহ ৪ জনের নাম উল্লেখ করে কেশবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। সোমবার থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

অভিযোগে মোঃ আঃ সবুর শেখ জানান,  কেশবপুর উপজেলার সাতবাড়িয়া বাজারে আমি দীর্ঘ ৩০ বছর পূর্বে কোবলা দলিল মূল্যে ক্রয় করে ভোগ দখলে আসছি। কিছুকাল আগে থেকে বিবাদি আব্দুল লতিফ গং তাদের পক্ষের লোকজন আমার জমি জোর করে জবর দখলে নেওয়ার পায়তারা করছে। আমাকে বিভিন্নভাবে ক্ষয় ক্ষতি করার ও হুমকিও দিয়ে আসছে। ভিজিট করুন

রবিবার ০৬/১২/২০২০ বেলা অনুমান ১১:০০ টার সময় আমি লোকজন নিয়ে আমার জমিতে দোকান ঘর করার লক্ষ্যে পিলার দিয়ে স্থাপনা তৈরী করার কাজ করাকালে বিবাদী সাতবাড়িয়া গ্রামের আঃ লতিফ, সহিদুল ইসলাম, উভয় পিতা- আঃ মজিদ সরদার, আঃ মজিদ সরদার, পিতা- মৃত নছির সরদার, হানেফ সরদার, পিতা- মৃত আলী বক্স সরদার সহ অজ্ঞাতনামা ১২/১৪ জন আমার জমিতে এসে আমার দোকান ঘর তৈরী করার কাজে বাধা সৃষ্টি করে। দোকান ঘর তৈরী করলে তারা আমাকে মারপিট, ক্ষয়ক্ষতি, খুন-জখম করবে বলে ভয়ভীতি দেখায় এবং দোকান ঘর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেবার হুমকি দেয়। ভিজিট করুন

এরপর সোমবার (০৭/১২/২০২০) সকালে জমিতে গিয়ে দেখি নির্মানাধীন ৫ টি দোকান ঘর কে বা কারা শনিবার রাতের যে কোন সময়ে ভাংচুর করে দিয়েছে। বিবাদীরাসহ তাদের পক্ষের লোকজনই তার নির্মানাধীন দোকান ঘর ভাংচুর করে ক্ষয়ক্ষতি করছে বলে সবুর শেখ অভিযোগে উল্লেখ করেছেন।

এ ব্যাপারে তদন্তকারী দারোগা এস আই সিরাজুল ইসলাম জানান, অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। কে বা কারা রাতে বেলায় নির্মানাধীন দোকান ঘরের কয়েকটা পিলার ভেঙে দিয়েছে।

ঘের মালিকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন