বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শোকবার্তা পাঠিয়ে বলেছিলেন “আমাদের মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।”

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শোকবার্তা পাঠিয়ে বলেছিলেন “আমাদের মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।”

মুক্তিযুদ্ধ জাতীয় খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সাজেদ রহমান, সিনিয়র সাংবাদিক।।  যশোরে যাঁর মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শোকবার্তা পাঠিয়ে বলেছিলেন “আমাদের মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।”

আর যোগাযোগমন্ত্রী এম. মনসুর আলীর শোকবার্তায় বলেছিলেন “তাঁর মৃত্যুতে আমি একজন ব্যক্তিগত বন্ধু ও একজন দেশপ্রেমিককে হারালাম।” তিনি হলেন মোশাররফ হোসেন। আজ তাঁর মৃত্যু বার্ষিকী।
১৯৭৪ সালে আজকের দিনে তাঁকে হত্যা করা হয়। তিনি মুক্তিযোদ্ধা রওশন জাহান সাথী আপার পিতা। মোশাররফ হোসেন ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক (১৯৬৬), সহ-সভাপতি (১৯৭০) ও পরে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি (১৯৭১)। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে যশোর সদর আসন থেকে তিনি প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৭২ সালে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল — জাসদের (JaSoD) সহ-সভাপতির পদ গ্রহণ করেন। তার আগে তিনি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন।
নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন অন্যতম একজন যিনি ভারতীয় সহযোগিতা- সমর্থন নিশ্চিত করতে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সাথে দেখা করেন। ১৯৭১ সালের এপ্রিল মাসের শুরুতেই অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেনের সেই কর্মতৎপরতা ত্বরান্বিত করেন, যার ফলে শরণার্থীদের জন্য দ্রুতই খুলে দেয়া হয় সীমান্ত।
বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীতে লেখা হয়েছে অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমানের কথা। যশোর আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমানের ছোট ভাই মোশাররফ হোসেন হয়ে ওঠেন স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন। মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মোশাররফ হোসেন যেমন নিবেদিত ছিলেন যুদ্ধপূর্ব রাজনৈতিক সংগ্রামে, তেমন নিবেদিত ছিলেন সশস্ত্র সংগ্রামে।
ছয় দফা, ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান, সত্তরের নির্বাচন হয়ে ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের মত সব ঘটনা প্রবাহে ভূমিকা রাখা দৃঢ়চেতা এক নেতা মোশাররফ হোসেন।
মোশাররফ হোসেন বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে এক বিরল উদাহরণ যিনি নিজের দল ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও দল ও সংসদ সদস্যপদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। আওয়ামী লীগ ছেড়ে জাসদ করার কারণে এই বীরমুক্তি যোদ্ধাকে কেউ স্মরণ করেন না। অথচ যশোরের মুক্তিযুদ্ধের কথা লিখতে গেলে তাঁকে বাদ দিয়ে লেখা সম্ভব না। তাঁর মৃত্যু বার্ষিকীতে তাঁকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। ভিজিট করুন

1 thought on “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শোকবার্তা পাঠিয়ে বলেছিলেন “আমাদের মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।”

Comments are closed.