‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করায় আলোচিত শিশু বক্তা রফিকুল ইসলামকে লিগ্যাল নোটিশ

‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করায় আলোচিত শিশু বক্তা রফিকুল ইসলামকে লিগ্যাল নোটিশ

জাতীয় খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নামের শেষে ‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করায় আলোচিত শিশু বক্তা রফিকুল ইসলামকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন সৌদি আরবের মদিনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়ে আসা রফিকুল ইসলাম মাদানী। তিনি হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মদিনা শাখার আমির ও সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সদস্যও।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রফিকুলের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শরীফুল হাসান খাঁন এই নোটিশ পাঠান। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন ওই আইনজীবী। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে নিজের পরিচয়ের সঙ্গে ‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করা বন্ধ করা না থাকলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে রফিকুল ইসলামকে নোটিশে জানানো হয়।

নোটিশে বলা হয়, আপনি নোটিশগ্রহীতা মদিনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া না করে এবং মদিনা মুনাওয়ারায় বসবাস না করা সত্ত্বে দীর্ঘদিন যাবত বেআইনিভাবে নিজের নামের সঙ্গে ‘মাদানী’ উপাধি ব্যবহার করে আসছেন, যেটি অন্যায়। শুধু মানুষকে বিভ্রান্ত করে অনৈতিক ফায়দা হাসিলের উদ্দেশ্যে প্রতারণামূলকভাবে সত্য গোপন করে আলেম-ওলামাসহ পাঠকদের কাছে আমার মক্কেলের গ্রহণযোগ্যতাকে বিনষ্ট করার হীন উদ্দেশ্যে নিজের নামের সঙ্গে ‘মাদানী’ পদবি ব্যবহার করছেন, যা সম্পূর্ণভাবে অনৈতিক ও বেআইনি।

নোটিশে আরও বলা হয়, আমার মক্কেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী তার নামের সঙ্গে প্রায় ২৫ বছরের বেশি সময় ‘মাদানী’ পদবি ব্যবহার করে দেশে ও বিদেশে সর্বমহলে পরিচিতি লাভ করেছেন। কিন্তু আপনাকে আমার মক্কেল একাধিকবার মৌখিকভাবে এ অনৈতিক কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা সত্ত্বেও আপনি অনুরোধ রক্ষা না করে আপনার অনৈতিক ও বেআইনি কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ‘মাদানী’ পদবি ব্যবহার করা থেকে বিরত না থাকলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানা গেছে, নোটিশ প্রাপক রফিকুল ইসলাম রাজধানীর জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা মাদরাসায় লেখাপড়া করেছেন। শারীরিক আকৃতিতে ছোট হওয়ায় তাকে সবাই শিশু বক্তা বলেন এবং এ হিসেবেই পরিচিতি পান তিনি। নেত্রকোনা জেলার পশ্চিম বিলাশপুর সাওতুল হেরা মাদ্রাসার পরিচালক রফিকুল ইসলাম ২০ দলীয় জোটভুক্ত জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও রাবেতাতুল ওয়ায়েজিনের সঙ্গে যুক্ত আছেন বলেও জানা গেছে।