যশোর কলেজ(এমএম কলেজ)

যশোর এম এম কলেজের ইতিহাস

কলাম ও ফিচার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
যশোর কলেজ(এমএম কলেজ)
যশোর শহরের গরীব শাহ সড়কে (এখন শহীদ মসিয়ুর রহমান সড়ক) ১৯২২ সালে স্থাপিত ন্যাশনাল মেডিকেল স্কুল ও হাসপাতালের একাংশে ১৯৪১ সালে যশোর কলেজ চালু করা হয়।
শুরুতে কলেজটির নাম ছিল যশোর কলেজ। পরে কলেজের নাম পরিবর্তন করে মাইকেল মধুসূদন কলেজ (এমএমকলেজ) করা হয়। কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোক্তদের অন্যতম ছিলেন যশোর জেলা বোর্ডের ইঞ্জিনিয়ার বাবু ক্ষিতিনাথ ঘোষ।
বি.সরকার (তসবির মহল) মেমোরিয়াল হলে অনুষ্ঠিত এক সভায় যশোর কলেজ প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাবু মহিতোষ রায় চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন চন্দ্রনাথ ব্যানার্জী, ক্যাপ্টেন জীবন রতন ধর, নীল রতন ধর, নগেন্দ্র নাথ ঘোষ, সুরেন্দ্র নাথ হালদার, ক্ষিতিনাথ ঘোষ, খান বাহাদুর লুৎফর রহমান, এ্যাডভোকেট আবদুর রউফ, এ্যাডভোকেট ওয়ালিউর রহমান, চারুচন্দ্র দত্ত, কৃষ্ণবিনোদ রায়, রায় বাহাদুর কেশব লাল চৌধুরী, বিজয় কৃষ্ণ রায়, বিজয় রায় প্রমুখ।
কলেজে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি শুরু হয় ১ জুলাই ১৯৪১ সালে। ১৯৪১-৪২ শিক্ষা বর্ষে মোট ১৪৬ জন ভর্তি হয়। প্রথম ছাত্র শ্রীমান অনন্ত কুমার ঘোষ, প্রথম বছর ৪ জন ছাত্রী ভর্তি হয়। এরা হলেন-বাবু রামচন্দ্র রায়ের কন্যা লীলা রায়, যশোরের তৎকালীন সিভিল সার্জন ডাঃ এ দত্তের কন্যা মিস কল্যাণী দত্ত, যশোরের পুরাতন কসবার মুন্সী লুৎফর রহমানের কন্যা মনোয়ারা খাতুন এবং যশোরের শান্তি মুখার্জী। প্রথম বর্ষের আরও ভর্তি হন আব্দুল হাই, নুরুল হুদা, শামসুল হুদাসহ অনেকে।

দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময় কলেজ উঠে আসে বর্তমান ফায়ার ব্রিগেড অফিসের ওখানে। সেটা ছিল তখন হাটবাড়িয়া জমিদারের কাছারি বাড়ি। ক্লাস চলত গোলপাতার চালা ঘরে। একটি পাকা কক্ষে অফিসের কাজ চলতো।

১৯৪৬ সালে পুরনায় কলেজ সাবেক স্থানে ফিরে আসে। পরে কলেজ চলে যায় খড়কি এলাকায়। ১৯৪১ সালে কলেজের প্রথম অধ্যক্ষ ছিলেন ডঃ ডিএন রায়। এরপর পর্যায়ক্রমে ডঃ এসি বোস, মিঃ কে পি মিত্র, মিঃ ভোলানাথ হালদার, মিঃ এ আর জোয়াদ্দার, আব্দুল ওয়াহেদ, সৈয়দ আহম্মদ আলী, মোঃ আব্দুল হাই, খলিলুর রহমান, শামসুল করিম, নুরুজ্জামান, আবদার রশিদ, আনোয়ারুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম, মোহাম্মদ আব্দুল হাই, তামিজুল হক, মোঃ হানিফ, মোহাম্মদ শরীফ হোসেন। -সাজেদ রহমার, সিনিয়র সাংবাদিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.