সংবাদকর্মীদের তেলা মাথায় তেল দেয়ার মানসিকতা ছাড়তে হবে

সংবাদকর্মীদের তেলা মাথায় তেল দেয়ার মানসিকতা ছাড়তে হবে

গণমাধ্যম জাতীয় খবর
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য ও তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প ঘিরে কক্সবাজারে কতো লুটপাট হলো কোন সাংবাদিক কি লিখেছেন? সংবাদকর্মীদের তেলা মাথায় তেল দেয়ার মানসিকতা ছাড়তে হবে। সাহস করে সত্য না লিখলে সমাজে অপরাধ বেড়ে যাবে। ভীতুরা দয়া করে সাংবাদিকতায় আসবেন না।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারে হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প দিয়েছেন। কিন্তু এখানে লুটপাটও কম হয়নি। ৫০০ টাকার জন্য মিথ্যা সংবাদ ছেপে পেশাকে কলঙ্কিত করবেন না। মেধা দিয়ে কাজ করুন।

বৃহস্পতিবার প্রেস ইন্সটিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি) এর তিন দিনব্যাপী সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি কমল প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

তিনি বলেন, সাংবাদিকতায় জীবন ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা থেকে যায়। মেধাবী সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে হবে। অদক্ষ লোকজন সাংবাদিকতায় আসলে পেশার দুর্নাম হতে পারে। দক্ষ ও মেধাবী লোকজনকেই সাংবাদিকতা পেশায় আসা দরকার।

শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) বিকালে কক্সবাজার প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠানে সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বলেন, সত্য সংবাদের কারণে কারো চোক রাঙ্গানী এবং জেল খাটতে হতে পারে। সব মাথায় রেখে এই পেশায় আসা দরকার। লোভী, ভীতু মানুষের জন্য সাংবাদিকতা আসে নি।

কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আরো বলেন, আপনাদের লিখনিতে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। প্রতিটি লিখনি হতে হবে গঠনমূলক সমালোচনা ও উন্নয়নের। মিথ্যা সংবাদের মাধ্যমে মানুষকে বিভ্রান্ত করা যাবে না।

তিন দিনব্যাপী সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণে সংবাদের সংজ্ঞা, উপাদান, সংবাদ মূল্য ও সংবাদ চেতনা, সংবাদ সূচনা ও শিরোনাম, সংবাদের বৈশিষ্ট্য, সংবাদ লেখার কৌশল, সংবাদ কাঠামো, সংবাদের ভাষা ও সাংবাদিকতার সেকাল একাল, অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা, সাক্ষাৎকার গ্রহণের কৌশল, ফিচার ধারণা, রিপোর্টিংয়ে সাংবাদিকদের করণীয়-বর্জনীয় নীতিমালা ইত্যাদি বিষয়ে হাতেকলমে শেখানো হয়েছে।

প্রশিক্ষণে বিভিন্ন উপজেলার ৭০ জন সাংবাদিক অংশগ্রহণ করেন। কক্সবাজার প্রেস ক্লাব ও জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষ পৃথক দুইটি ভেন্যুতে একযোগে বুনিয়াদি প্রশিক্ষণটি দেয়া হয়।

পিআইবির মহাপরিচালক ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক জাফর ওয়াজেদের সভাপতিত্বে তিন দিনের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণে রিসোর্স পারসন ছিলেন-চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাহাব উদ্দিন নিপু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারি অধ্যাপক মো. আসাদুজ্জামান, বাংলাভিশনের সিনিয়র বার্তা সম্পাদক রুহুল আমিন রুশদ, নিউইয়র্ক টাইমসের স্ট্রিংগার ও বৈশাখী টিভির পরিকল্পনা পরামর্শক জুলফিকার আলি মানিক, প্রেস ইন্সটিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি)’র প্রশিক্ষক শাহ আলম সৈকত, সহকারি প্রশিক্ষক বারেক হোসেন।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) উদ্বোধনী দিনে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ। প্রশিক্ষণকালে কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মুজিবুল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ আয়াছুর রহমান, সাংবাদিক মোহাম্মদ জুনাইদ, পিআইবির সাইফুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যে আবু তাহের চৌধুরী সাংবাদিকদের পেশাগত উন্নয়ন ও কর্মক্ষেত্রে সব ধরণের সহায়তার আশ্বাস দেন। সেই সঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে দেয়ায় পিআইবির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। ভিজিট করুন

ভাল আছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

1 thought on “সংবাদকর্মীদের তেলা মাথায় তেল দেয়ার মানসিকতা ছাড়তে হবে

Comments are closed.